মেনু নির্বাচন করুন
Text size A A A
Color C C C C
পাতা

জেলার ঐতিহ্য

রেল ও রাজবাড়ী

রাজবাড়ী মূলতঃ রেল শহর। ঊনবিংশ শতাব্দী থেকে রাজবাড়ীর যে অর্থনৈতিক বুনিয়াদ গড়ে উঠেছে তা রেলকে কেন্দ্র করে। প্রথমে রেল গোয়ালন্দ ঘাট পর্যন্ত বিস্তৃত হলেও ঘাটের ভাঙ্গন এবং ঘাট রাজবাড়ী শহরের অদূরে অবস্থিত হওয়ায় রেলের সকল স্থাপনা বর্তমান রাজবাড়ী শহর এলাকায় গড়ে উঠে এবং শহরের পত্তন হয়। মূলতঃ রাজবাড়ী তখন গোয়ালন্দ থানা হিসেবে দুর্গাপূর, তেনাপঁচা, জামালপুর সমন্বয়ে গোয়ালন্দ ঘাট নামে পরিচিত ছিল। রেলওয়ে লোকোসেড, স্টেশন, অফিস, কলোনী, বাসস্থান সবই রাজবাড়ীতে গড়ে উঠে। ১৮৭২ সালে রেল পাংশা হতে কালুখালীর উত্তর দিয়ে সোজা গোয়ালন্দ ঘাট হিসেবে জামালপুর পর্যন্ত বিস্তৃত ছিল। পরে ১৮৯০ সালে বর্তমান রাজবাড়ী স্টেশন থেকে পাঁচুরিয়া হয়ে গোয়ালন্দ পর্যন্ত লাইন স্থাপন করা হয়। রেল স্থাপনের কারণেই রাজবাড়ীতে আগমন ঘটেছে রবীন্দ্রনাথ, তারাশঙ্কর, অবধূতের মত সাহিত্যিকের। রেলের কারণে রেল শ্রমিক ইউনিয়ন গড়ে উঠে এবং আগমন ঘটে এককালের বামপন্থী নেতা পশ্চিম বাংলার সাবেক মুখ্যমন্ত্রী জ্যোতিবসুর (১৯৪৯ খ্রিস্টাব্দ)।

 

 

মিষ্টি

রাজবাড়ী জেলার চমচম এবং মালাইকারি সমগ্র বাংলাদেশে প্রশংসিত। এখানকার খাটি দুধ এর দই আর মিষ্টি মানুষকে আকৃষ্ট করে।

 

 

তথ্যের জন্য সহায়ক বই/ওয়েবসাইট/ব্যক্তির ঠিকানা

 

বইঃ

1.বাংলাপিডিয়া

সম্পাদনা-বাংলাদেশ এশিয়াটিক সোসাইটি

2.রাজবাড়ী জেলারইতিহাস ও ঐতিহ্য

প্রফেসর মতিয়ার রহমান

3.ডিস্ট্রিক্ট গেজেটিয়ার, ফরিদপুর

 

ওয়েবসাইটঃ

1. www.banglapedia.org

2. www.wikipedia.com

3. Microsoft Encarta 2009 (www .microsoft.com/uk/encarta/default.mspx)